প্রশান্ত দাস, টিডিএন বাংলা, মালদা: জেলা বিজেপির গাফিলতিতে প্রধানমন্ত্রীর শপথ গ্রহন অনুষ্ঠানে পৌছতে পারলো না মালদার বিজেপির নিহতের পরিবার। আজ দ্বিতীয় বারের জন্য প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিতে চলেছেন নরেন্দ্র দামোদর দাস মোদী। শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানের আগেই রাজ্যে রাজ্যে নিহতদের পরিবারের কাছে তার শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকার জন্য নির্দেশ পাঠানো হয়েছে।

অথচ সেই নির্দেশের কোন কিছুই পৌঁছায়নি পঞ্চায়েত নির্বাচনে নিহত মালদার হবিবপুর এর নিপেন মণ্ডলের বাড়িতে। কোলে ছেলের ছবি আঁকড়ে ধরে দোষীদের শাস্তির দাবি জানিয়েছে বৃদ্ধা মা। এই নির্দেশ না পাওয়ার পেছনে জেলা নেতৃত্বকেই দায়ী করেছে তার পরিবার।

মালদার হবিবপুর থানার জাজৈইল গ্রামের বাসিন্দা নৃপেন মন্ডল। ২০১৩ সালে পঞ্চায়েত নির্বাচনে এই এলাকা থেকে জেলা পরিষদ আসনে জয়ী হয়। এরপর মালদা জেলা পরিষদের বিরোধী দলনেতা ও নির্বাচিত হন। এরপরই সেই বছর নৃশংসভাবে গুলি করে খুন করে তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা বলে পরিবারের অভিযোগ। এরপর বারবার আন্দোলন ও স্থানীয় পুলিশ প্রশাসনকে জানালেও অধরাই থেকে যায়।

এরপর কালের পরিবর্তন হয়েছে কিন্তু এখনও পর্যন্ত খুনের কিনারা হয়নি। এই বছর দ্বিতীয় বারের জন্য প্রধানমন্ত্রী পদে শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে নিহত পরিবারের সদস্যদের উপস্থিত থাকার জন্য নির্দেশ জারি করা হয় প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে। এই নির্দেশ বাংলার বিভিন্ন জায়গায় পৌছলেও মালদার হবিবপুর এর নিহত নৃপেন মন্ডল এর বাড়ির পরিবারের সদস্যদের কাছে পৌঁছায়নি তা।

পরিবারের অভিযোগ, জেলা নেতৃত্ব তাদের কাছে কোন কিছুই জানায়নি। জানালে নিশ্চয়ই তারা এদিনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত হতেন। মালদা জেলা বিজেপির সভাপতি সঞ্জিত মিশ্র তাদেরকেও কোন নির্দেশ পাঠাইনি। তাই তাদের কাছে অধরাই থেকে গেল প্রধানমন্ত্রীর শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান। দিল্লীর অনুষ্ঠানে থাকায় জেলা বিজেপির কোন প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায় নি।