কৌশিক সালুই, টিডিএন বাংলা, বীরভূম: শুরু হল আত্মসাৎ করা টাকা ফেরতের পালা। এবার শতাধিক  গ্রামবাসীর চাপে হাতে হাতে ১৬০০ টাকা করে তুলে দিলেন তৃণমূলের বুথ সভাপতি। মঙ্গলবার সকালে সিউড়ি ২নং ব্লকের কোমা গ্রামপঞ্চায়েতের চাতরা গ্রামে তৃণমূলের নেতার কাছ থেকে কাটমানি আদায় করে উচ্ছাসে ভেসেছে গোটা গ্রাম। ১৪১ জন শ্রমিক আদায় করেছেন আট মাস আগে একশো দিনের কাজে গ্রামে নর্দমা সংস্কারের মজুরী।

এদিন টাকা হাতে নিয়ে গ্রামের খুশি মাল, আরতি মাল,যাদব মন্ডল, সুবোধ বাগদিরা জানান,”কবে কাজ করেছি তার ঠিক নেই। টাকা চাইলে তৃণমূলের বুথ সভাপতি ত্রিলোচন মুখার্জি দিত ধোলাইয়ের হূমকি। গত আট বছর ধরে একশোদিনের সামান্যও যা কাজ হয়েছে সব টাকা নেতা ব্যাংক থেকে তুলে নিজের কব্জায় নিয়ে নিত। তারপর পেছন পেছন ঘুরে মিলত দুশো-পাঁচশো র মত ভিক্ষার দান। গত দু-তিন বছরে তো টাকা দেওয়ায় বন্ধ হয়ে গিয়েছিল।”

জানা গেছে, শেষ নর্দমা সংস্কারের কাজে দু মাস আগে এসেছিল প্রায় ২ লক্ষ ৪১ হাজার টাকা। সব তুলে নিয়েছিল। কিছুতেই দিচ্ছিল না। অবশেষে গ্রামবাসীরা একজোট হয়ে বিক্ষোভে সামিল হতে এদিন প্রত্যেকের হাতে ১৬০০ টাকা করে ফেরত দেয় ওই তৃণমূল নেতা। তৃণমূল নেতাকে এব্যাপারে জিজ্ঞাসা করার জন্য তার বাড়িতে যাওয়া বাড়ির লোকেরা বলে সে নেই। ফোন করলেও পাওয়া যায় নি। পরিস্কার বোঝা গেছে তৃণমূল নেতা গা ঢাকা দিয়েছেন।