Press conference - Derek O'Brien - Firhad Hakim - Amit Mitra - Trinamul Congress Bhavan.

কৌশিক সালুই, টিডিএন বাংলা, বীরভূম: এবার বিজেপিকে নিষিদ্ধ করার দাবি জানালেন কলকাতার মেয়র ফিরহাদ হাকিম। রবিবার বীরভূমের সিউড়িতে দলের বর্ধিত সভায় এই দাবি করেন। এই কর্মীসভায় এ দিন উপস্থিত ছিলেন বিধায়ক মঈনউদ্দিন শামস, নীলাবতী সাহা, অভিজিৎ রায়, অশোক চট্টোপাধ্যায় আব্দুর রহমান, দুই মন্ত্রী আশীষ বন্দোপাধ্যায় এবং চন্দ্রনাথ সিনহা, বোলপুর সাংসদ অসিত মাল, নানূরের তৃণমূল নেতা শেখ কাজল সহ অন্যান্য নেতৃত্ববৃন্দ।

ফিরহাদ হাকিম বলেন,” বিজেপি সারা দেশে অরাজকতা সৃষ্টি করছে। মালেগাঁও বিস্ফোরণকাণ্ডে যার বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছিল সেই সাদ্ধি প্রজ্ঞা এখন বিজেপি সাংসদ। তার মানে একজন সন্ত্রাসবাদী বিজেপি সাংসদ। তাই বিজেপিকে নিষিদ্ধ করা উচিত। কয়েকটা সিট জেতার পর যেটা গুজরাটে করেছিল, যেটা মুজাফফরনগরে করেছিল, সেটা এখন গোটা বাংলায় করার চেষ্টা করছে। ধর্মীয় মেরুকরণ করে তৃণমূল কংগ্রেস এবং তার সমর্থকদের উপর অত্যাচার করছে। সন্দেশখালিতে তৃণমূল কংগ্রেসের মিটিং হচ্ছিল একটা ঘরে। প্ররোচনা দিয়ে,  জোর করে মিছিল করে নিয়ে এসে সেখানে ভাঙচুর করে বিজেপি। আমি পুলিশকে বলব কোথাকার মানুষ কোথায় এসে গন্ডগোল করেছে। তৃণমূল কংগ্রেস কর্মীরা তাদের গ্রাম গিয়ে, না ওদের মানুষগুলো এসে তৃণমূল কর্মীদের উপর হামলা করেছে। যদিও আমি বলছি প্রত্যেকটা মৃত্যুই দুঃখের। তাদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা আমাদের আছে। যারা মারা গেছে তারা নিরীহ মানুষ। তাদের প্ররোচনা দিচ্ছে বিজেপি। এখানে প্ররোচনা দিয়ে রাজ্যের আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি খারাপ করে দিল্লিতে রিপোর্ট পাঠানোর চেষ্টা করছে যে, এখানে পরিস্থিতি একবারে খারাপ। কিন্তু বাংলার মানুষকে এভাবে অপমান আমরা সহ্য করব না। নিজেরাই এভাবে দাঙ্গা লাগাবে।  তৃণমূল কংগ্রেসের পার্টি অফিসে এসে আমাদের কর্মীদের উপর গুলি চালিয়ে হামলা করছে। তাদের কাছ থেকেই প্রথম গন্ডগোল শুরু হচ্ছে। আর দেখানোর চেষ্টা করছে যে সমস্ত ঘটনার জন্য দায়ী তৃণমূল কংগ্রেস। অবিলম্বে বিজেপিকে নিষিদ্ধ করা উচিত। সংখ্যালঘু অধ্যুষিত এলাকায় গিয়ে জয় শ্রীরাম বলে চিৎকার করে প্ররোচনা দিচ্ছে। দাঙ্গা বাঁধানোর  চেষ্টা হচ্ছে। বাংলার মানুষ হিসেবে এই পরিস্থিতি কঠোর ভাবে আমাদেরকে মোকাবিলা  করতে হবে। একটা রাজনৈতিক দল যারা দিল্লি শাসন করছে তারা দায়িত্বহীনতার পরিচয় দিয়ে বাংলা মানুষকে বিপদে ফেলার চেষ্টা করছে। এটা কেউ কোনদিন সমর্থন করতে পারে না”।