কৌশিক সালুই, টিডিএন বাংলা, বীরভূম: কাঠ মানি ফেরতের দাবিতে ফের আজ সকাল থেকে উত্তাল সিউড়ি থানার অন্তর্গত কোমা গ্রাম পঞ্চায়েতের খন্না গ্রাম। সকাল থেকেই এলাকার স্থানীয় বাসিন্দারা স্থানীয় ওই তৃণমূল নেতার বাড়ির সামনে এসে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে গেলে সাত দিনের মধ্যে সমস্ত হিসাব দেখানোর প্রতিশ্রুতি দেয় ওই তৃণমূল নেতা।

কোমা গ্রাম পঞ্চায়েতের খন্না গ্রামের বাসিন্দাদের মূল দাবি হলো , “১০০ দিনের কাজের টাকা এবং সরকারি বিভিন্ন প্রকল্পে নেওয়া বাড়তি টাকা অবিলম্বে আমাদের ফেরত দিতে হবে অথবা আমাদের হিসাব দিতে হবে।”

স্থানীয় বাসিন্দা গৌতম দাসের অভিযোগ, “গরিব মানুষদের ব্যাঙ্কে নিয়ে গিয়ে ভুল বুঝিয়ে তৃণমূল নেতৃত্ব টাকা তুলেছে তাদের নিজস্ব টাকা বলে দাবি করে। এতদিন কেউ সেসব বিষয় বুঝতে না পারলেও এখন সবার নজরে এসেছে।”

স্থানীয় গ্রামবাসীরা জানান আগামী ৭ দিনের মধ্যে আমাদের থেকে নেওয়া সমস্ত রকম বাড়তি টাকা ফেরত দিতে হবে। যদি সেই টাকা বা সেই টাকার হিসাব না পায় তাহলে আমরা বৃহত্তর আন্দোলনের পথে যাবো।

স্থানীয় তৃণমূল নেতা রঞ্জন মন্ডল জানান, “টাকা তছরুপের কোন গল্প আমাদের এখানে নেই। গ্রামবাসীরা এসেছিলেন হিসেব নেওয়ার জন্য। আমি ওদের বলেছি হিসাব দেবার জন্য একটু সময় লাগবে। আগামী মঙ্গলবার পর্যন্ত সময় নিয়েছি।”