স্বর্ণেন্দু , টিডিএন বাংলা, কলকাতা: প্রাকৃতিক দুর্যোগের কারণে বাংলাদেশের জলসীমায় ঢুকে যেতে বাধ্য হয়েছিল এই রাজ্যের একাধিক মৎস্যজীবী। সেখান থেকে উদ্ধার করে মঙ্গলবার রাজ্যে ফেরত পাঠানো হলো ৫১৬ জন মৎস্যজীবীকে। সঙ্গে ফেরত পাঠানো হলো ৫০ এর বেশি ট্রলার। বেশ কিছু দিন ধরে বাংলাদেশে আটকে ছিল ট্রলার গুলি। বাংলাদেশ উপকূলরক্ষী বাহিনীর সৌজন্যে নিজের দেশে প্রাণ হতে নিয়ে ফিরলেন তারা।

৫১৬ জন দেশে ফিরলেও এখনও নিখোঁজ ২৪ জন মৎস্যজীবী। তারা কবে ফিরবেন ? আদৌ ফিরবেন কিনা তাই নিয়ে তৈরি হয়েছে অনিশ্চয়তা।

ভারতীয় উপকূলরক্ষী বাহিনীর মুখ্য জনসংযোগ আধিকারিক জানিয়েছেন, নিখোঁজ মৎস্যজীবীদের খোঁজে জোরকদমে চলছে অভিযান। বাংলাদেশ কোস্ট গার্ড তাদের জলযান ছাড়াও এয়ারক্রাফ এর মাধ্যমে তল্লাশি অভিযান চালাচ্ছে। ট্রলার নিখোঁজ হওয়ার পর বেশ কিছুদিন অতিক্রান্ত, সেই জায়গায় দাঁড়িয়ে নিখোঁজ মৎস্যজীবীদের উদ্ধার করা যাবে কিনা তাই নিয়ে সন্দেহের মধ্যে বিসিজি। যদিও অলৌকিক কিছুর আশায় এখনও তল্লাশি অভিযান চালিয়ে যাচ্ছেন তারা।

প্রসঙ্গত, আর আগে আরও প্রায় দুই শতাধিক মৎস্যজীবী বিসিজি এর সৌজন্যে সুস্থ স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে এসেছে নিজের দেশে। এই মৎস্যজীবীরা পশ্চিমবঙ্গের কাকদ্বীপ থেকে মাঝ সমুদ্রে মাছ ধরতে পারি দিয়েছিল। প্রসঙ্গত, দুই দেশের উপকূল রক্ষী বাহিনী নিজেদের মধ্যে একটি মউ স্বাক্ষর করলো মঙ্গলবার। যেখানে দুই দেশ আরও গুরুত্বপূর্ণ ভাববে নিজেদের মধ্যে বোঝাপড়া রেখে আগামী দিনে কাজ করবে।