বিজেপিকে নিয়েও ত্বহা সিদ্দিকী হুঁশিয়ারি দেন। তিনি বলেন, “ভারতের অন্য রাজ্যে বিজেপি আরএসএসের জায়গা হয় কিনা জানিনা, আমি ত্বহা সিদ্দিকী বলছি এই পশ্চিমবঙ্গে আরএসএস বিজেপির কোনও জায়গা হবেনা। এই সাম্প্রদায়িক শক্তিকে শুধু মুসলমানরা তাড়াবেনা, আমরা হিন্দু মুসলমান কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে বর্জন করবো। এই পশ্চিমবঙ্গে সম্প্রীতি ছিল, থাকবে। হিন্দু মুসলিম এক সাথে আমরা ছিলাম,এক সাথে চা খেয়েছি। কিন্তু কোনও রাজনৈতিক দল যদি মনে করে হিন্দু মুসলমানের মধ্যে বিভেদের প্রাচীর তৈরি করবো তবে সেই প্রাচীরকে ভেঙে ফেলবো।”
দেখুন সেই ভিডিও

 

রবিবারের সভায় ত্বহা সিদ্দিকীর হাজার হাজার ভক্ত এসেছিলেন। একজন টিডিএন বাংলাকে বলেন, “প্রায় দশ হাজার লোক হয়েছে।” এদিন পীরজাদা ত্বহা সিদ্দিকী বলেন, “আজ যারা আমাকে ভালো বেশে এসেছেন আর যারা মমতাকে ভালো বেশে এসেছেন তাদের প্রমান করতে হবে, যারা বুদ্ধদেবকে ভালো বেশে এসেছেন তাদের প্রমান করতে হবে, ত্বহা সিদ্দিকী যারা ভালো বেশে এসেছেন তারা দাঁড়িয়ে প্রমান দিন।” এর পরেই হাজার হাজার লোক দাঁড়িয়ে বলেন,  তাঁরা ত্বহা সাহেবের পাশেই আছেন।
পীরজাদা আরও বলেন, “আমি শুধু মুসলমানদের জন্য ভাবিনি, আমি যদি শুধু মুসলমানদের জন্য ভাবি তবে আমি মুসলিম নই, আল্লাহর নবী মুহাম্মাদ(স) শুধু মুসলমানদের নবী নন, তিনি গোটা দুনিয়ার মানুষের রহমতের দূত।”
মুসলিমদের নিয়ে সব দল একই নীতি নিয়েছে বলে মনে করেন ত্বহা। তিনি বলেন, “বাংলার মুসলমানদের নিয়ে কংগ্রেস ফুটবল খেলেছে, সিপিআইএম ৩৪ বছর খেলেছে, আজকের এই সরকার ফুটবল খেলতে শুরু করেছে।”