নিজস্ব প্রতিনিধি, টিডিএন বাংলা, কলকাতা: পূর্ণ শিক্ষকের মর্যাদা সহ সাম্মানিকের বদলে ন্যায্য বেতনের দাবিতে পার্শ্ব শিক্ষকদের অনশন আন্দোলন আজ চতুর্থ দিনে পড়ল। পার্শ্ব শিক্ষক ঐক্য মঞ্চের ব্যানারে ১১ই নভেম্বর থেকে বিকাশ ভবনের অদূরে সল্টলেক সেন্ট্রাল পার্ক ময়দানে আন্দোলন কর্মসূচি শুরু করে তারা। শুক্রবার থেকে তারা আমরণ অনশন শুরু করেছে। ত্রিপল টাঙিয়ে ফুটপাথেই কাটছে শিক্ষক-শিক্ষিকাদের রাত। এপর্যন্ত ৭ অনশনকারী অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তির খবর পাওয়া গেছে। সুস্থ হয়ে তারা ফের অনশনে বসেছে।

পার্শ্ব শিক্ষকদের দাবি গুলি নিয়ে বারবার রাস্তায় নামার আবেদন জানিয়েও কাজ না হওয়ায় শেষমেষ আদালতের রায়ে আন্দোলনের সম্মতি পায় তারা। এদিকে অনশনের পাশাপাশি সোমবার থেকে অনির্দিষ্ট কালের জন্য স্কুল বয়কট কর্মসূচিও নিয়েছে পার্শ্ব শিক্ষকরা।

মঞ্চের যুগ্ম আহব্বায়ক ভগীরথ ঘোষ বলেন, দীর্ঘ ১৫ বছর শিক্ষকতার সাথে যুক্ত থাকলেও আমরা পূর্ণ শিক্ষকের মর্যাদা থেকে বঞ্চিত, আর্থিকভাবে বঞ্চিত ও ভাতা নামক দাসত্বের শিকার। এই দাসত্ব থেকে মুক্তি পেতে আমাদের এই কঠিন পথ বেছে নিতে হয়েছে। কোর্ট সমকাজে সম বেতনের ঘোষণা দিলেও সরকার এখনো তা কার্যকর করেনি, যার জন্যই আমাদের এই আন্দোলন কর্মসূচি। দাবি না মেটা পর্যন্ত আমরা এখান থেকে উঠছি না।

মুখ্যমন্ত্রী ক্ষমতায় আসার আগে পার্শ্ব শিক্ষকদের যে প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছিল তা আজও পালন করা হয়নি বলে মঞ্চের অভিযোগ। যতদিন না সরকার তাদের দাবি মানছে ততদিন আমরণ অনশন চলবে বলে জানিয়েছে মঞ্চ।