টিডিএন বাংলা ডেস্ক: তৃণমূল ও বিজেপি’র একপক্ষকে ভোট দেওয়ার মানে অপরপক্ষকে শক্তিশালী করা, ওরা পরস্পরের মধ্যে বোঝাপড়া করেই পশ্চিমবঙ্গের রাজনীতিতে বিরোধীদের জায়গা কেড়ে নিতে চেষ্টা করছে। রবিবার কলকাতায় সাংবাদিকদের কাছে এই মন্তব্য করেছেন সিপিআই(এম)’র সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরি। রামনবমী পালনের নামে তৃণমূল ও বিজেপি যেভাবে প্রতিযোগিতামূলকভাবে সাম্প্রদায়িকতা করছে এবং তার মাধ্যমে নিজেদের মধ্যে মেরুকরণ ঘটাচ্ছে তার উল্লেখ করে ইয়েচুরি বলেছেন, যাদের রাজনীতিটাই এমন যে পরস্পরকে শক্তি যোগায় তারা নির্বাচনে গোপন সমঝোতা করবে এতে আশ্চর্যের কি আছে! এদিন সাংবাদিক সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন সিপিআই(এম)-র রাজ্য সম্পাদক সূর্য মিশ্র।

ইয়েচুরি বলেন, এই বৈশাখে জালিয়ানওয়ালাবাগ হত্যাকান্ডের শতবর্ষও পালিত হচ্ছে। জালিয়ানওয়ালাবাগে নিহতদের মধ্যে শিখদের থেকে মুসলিমদের সংখ্যা বেশি ছিলো, যা স্বাধীনতা সংগ্রামে ভারতবাসীর ঐক্যকেই চিহ্নিত করে। সেই ঘটনার শতবর্ষ উদযাপনের সময় বাংলার বুকে রামনবমীর নামে মানুষের ঐক্য ভাঙার জন্য প্রতিযোগিতামূলক সাম্প্রদায়িকতা করছে তৃণমূল আর বিজেপি।

আরএসএস’এর নির্দেশে বিজেপি এবং তৃণমূল নেতারা গোপন বৈঠক করে নির্বাচনে পরস্পরকে সহযোগিতা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে যে সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে সেই সম্পর্কে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে ইয়েচুরি বলেছেন, ওরা প্রকাশ্যে সাংবাদিক বৈঠক করে নিজেদের বোঝাপড়ার কথা ঘোষণা করবে না। আমাদেরকেই জনগণের কাছে দেখাতে হবে যে তৃণমূল আর বিজেপি’র মধ্যে কোনো লড়াই হচ্ছে না, ওদের বিরুদ্ধে লড়াইতে বামপন্থীরা ছাড়া কেউ নেই। দেশ বাঁচাতে বিজেপি’কে পরাস্ত করতে হবে এবং বাংলাকে বাঁচাতে তৃণমূলকে পরাস্ত করতে হবে। একমাত্র বামপন্থীরাই ধারাবাহিকভাবে লড়াই করছে তৃণমূল-বিজেপি’র বিরুদ্ধে,বামপন্থীরাই বিকল্প।