নিজস্ব প্রতিনিধি, টিডিএন বাংলা, গোঘাট: তৃণমূলের তীব্র গোষ্ঠী কোন্দলে উত্তপ্ত হয়ে উঠল গোঘাটের পশ্চিমপাড়া এলাকা। সংঘর্ষের জেরে তৃণমুলের অত্যন্ত দাপুটে নেতা তথা প্রাক্তন পুর্ত কর্মাধ্যক্ষ ও বর্তমান পঞ্চায়েত সদস্য ফরিদ খান, বর্তমান পঞ্চায়েত সমিতির সদস্যের স্বামী তাহেরুল মোল্লা, দুজন মহিলা সহ মোট ছয় জনকে বেধড়ক মারধর করা হয় বলে অভিযোগ।

তাদের মধ্যে ফরিদ খান, তাহেরুল সহ তিন জনের অবস্থা আশংকাজনক।  তাদের কামারপুকুর ব্লক গ্রামীন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
এদিকে মঙ্গলবার সকাল থেকেই আতাউল বাহিনী ফরিদের এলাকায় ধারাল অস্ত্র নিয়ে দাপাদাপি করে বলে জানা যায়। তাড়া করে ফরিদ অনুগামীদের।ফরিদের বাড়িতেই চড়াও হয় বলে অভিযোগ। তাকে বাড়ি থেকে টেনে নিয়ে এসে মারধর করে।এর পরে তারা এলাকার তিন তৃণমূল কর্মীর বাড়িতে চড়াও হয়। তাদের প্রত্যেকের বাড়ি ভাংচুর করা হয়। এর জেরে এলাকায় আতংক ছড়িয়ে পড়ে।

ঘটনার খবর পেয়ে গোঘাট থানার ওসি বিশাল পুলিশ বাহিনী নিয়ে এলাকায় হাজির হয়। এই ঘটনার অভিযোগের তীর অপর দাপুটে ২  তৃণমুল নেতা আতাউল হক ও আতাউল দিগের ও তার দলবলের দিকে।যদিও ঘটনার পরেই দুই আতাউল বাহিনী এলাকা থেকে পালিয়ে গেছে বলে জানা গেছে।

মুলত ক্ষমতা দখলের লড়াই কে ঘিরেই এই আক্রমন। উল্লেখ্য যে, পঞ্চায়েতের বোর্ড গঠন থেকেই  এই দ্বন্দ্ব শুরু হয়। যার জেরে এখনও পঞ্চায়েতে উপপ্রধান পদে এখনও কাউকেই নির্বাচিত করা হয়নি। সেই থেকেই এই লড়াই ও দ্বন্দ্ব শুরু। দ্বন্দ্ব থামাতে ব্যর্থ দলের ঊর্ধ্বতন নেতৃত্ব৷ যদিও ঘটনার পূর্ণাঙ্গ তদন্ত করা হবে বলে জানান তৃনমুল ব্লক সভাপতি মনোরঞ্জন পাল।

Not available