কিবরিয়া আনসারী, টিডিএন বাংলা, ডোমকল: ডোমকলের এক যুবকের অস্বাভাবিক মৃত্যু ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়াল এলাকায়। প্রেমের কারণেই গলাই দড়ি আত্মহত্যা বলে প্রাথমিক অনুমান পুলিশের। মৃত যুবকের নাম- সামিম আক্তার (২৬)। ঘটনাটি ঘটেছে ডোমকল থানার ব্রিজ মোড়ে এক বন্ধুর ঘরে। মৃত যুবক রানিনগর থানার লালচাদাবাদ গ্রামের বাসিন্দা বলে জানা গিয়েছে।

পরিবার সূত্রে খবর, ডোমকলে থেকে ডিএড কোর্স করছিল। পাশাপাশি আল ইসলাহ্ মিশনে শিক্ষকতাও করত সে। বুধবার রাত সাড়ে ১১ টা নাগাদ বন্ধুর ঘরে গলাই দড়ি আত্মহত্যা করেন যুবক। কি কারণে আত্মহত্যা তা নিয়ে ধন্দে পরিবার।

যদিও মৃতের বন্ধুরা জানান, একটি মেয়ের সাথে সম্পর্ক ছিল তার। বেশির ভাগ সময়ে ফোনেই কথা বলত সামিম। এখন কার সাথে কথা বলত সেটা জানি না।

মৃতের বন্ধু মাসুদ কাওসার বলেন, রাতে কোচিং শেষ করে তিন বন্ধু ঘরে ফিরছিল। দুই বন্ধু কাজের উদ্দ্যেশে বাজারে যায়। সামিমকেও বাজারে যেতে বলা হয়। কিন্তু সে না গিয়ে বন্ধুদের বলে তোমরা ঘুরে এসো আমি ঘরে গেলাম। চল্লিশ মিটির পর ওই দুই বন্ধু ঘরে ফিরে এসে দেখে সে গলাই দড়ি দিয়ে ঝুলছে। তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকেরা মৃত বলে জানান।

পুলিশ মৃত যুবকের ঘর থেকে দুটি মোবাইল ফোন ও সুসাইড নোট উদ্ধার করেছে। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে ডোমকল থানার পুলিশ। মৃতদেহটি ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে।