টিডিএন বাংলা ডেস্ক: কাগজ আমরা দেখাব কিন্তু সরকার চাকরি দিক, বৃহস্পতিবার ব্যারাকপুরের টিটাগড়ে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন, এনআরসি ও এনপিআরের বিরুদ্ধে সভায় এমনটাই বললেন দিল্লির জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্রনেতা তথা সিপিআইয়ের জাতীয় পরিষদের সদস্য কানহাইয়া কুমার। এদিন তিনি বিধাননগর এবং ব্যারাকপুরে জোড়া সভা করেন। জোড়া সভাতেই তিনি বলেন, ‘‘কাগজ আমরা দেখাব। ডিগ্রির কাগজ। সরকার সেই কাগজ দেখে চাকরি দিক!’’

পাশাপাশি কানহাইয়া অভিযোগ করেন, সিএএ-এনআরসি-এনপিআর নিয়ে নরেন্দ্র মোদী-অমিত শাহরা ‘ডাহা মিথ্যা’ কথা বলছেন। তিনি মোদী-শাহদের ‘মিথ্যাচারে’র বিরুদ্ধে সরব হন।

সিএএ-বিরোধী আন্দোলনের প্রসঙ্গ টেনেই বিধাননগরে কানহাইয়া বলেন, ‘‘মোদী-শাহদের খেলা ছাত্র ও যুবরা ধরে ফেলেছেন। তাঁরা নাছোড় মেজাজে আন্দোলন করছেন। কিন্তু এই আন্দোলনকে এগিয়ে নিয়ে যেতে গেলে সংগঠনের স্থবিরতা ছাড়তে হবে। ঐশী ঘোষদের মধ্যে এই মেজাজ আছে। মারের মুখে দাঁড়িয়ে ওরা মাঠে-ময়দানে লড়াই করতে পারে। ঐশীই হতে পারে বাংলার মুখ।’’

উল্লেখ্য, এদিন সভার শুরুর আগেই তুমুল উত্তেজনা ছড়াল টিটাগড়ে। সেখানে সভা বানচালের চেষ্টা করে বিজেপি- আরএসএস। কানহাইয়া কুমারের নামে ‘দেশদ্রোহী’ পোস্টার লাগানোর অভিযোগ উঠে আরএসএস ও বিজেপির বিরুদ্ধে। পুলিশ আটক করে একাধিক আরএসএস কর্মীকে।