টিডিএন বাংলা ডেস্ক: জল্পনা ছিল বাংলা থেকে বেশ কয়েকজন মন্ত্রী হবেন। দিলীপ ঘোষের নাম নিয়ে কম আলোচনা হয়নি। শেষপর্যন্ত বাংলা থেকে কেউই পূর্ণমন্ত্রী হলেন না। কেন? দিলীপের কথায়, তাঁর মিশন ২১। বাংলা থেকে বাবুল সুপ্রিয় ও দেবশ্রী চৌধুরী হয়েছেন প্রতিমন্ত্রী। দিলীপকে মন্ত্রী করা হল না কেন? এব্যাপারে বিজেপির রাজ্য সভাপতির দাবি, মন্ত্রিত্ব নিতে আগ্রহী নন, সে কথাই আগেই শীর্ষ নেতৃত্বকে বলে দিয়েছিলেন। বাংলা দখলের লক্ষ্য এখনও পূরণ হয়নি।

দিলীপ ঘোষের রাজ্য সভাপতি হওয়ার পর থেকে বাংলায় বিজেপির সংগঠনে যে জোয়ার এসেছে, সে কথা অনস্বীকার্য। প্রথমবার খড়্গপুর থেকে প্রার্থী হয়েও জিত হাসিল করেছেন। আবার লোকসভা ভোটেও মেদিনীপুরে তৃণমূল প্রার্থীকে মাত দিয়েছেন দিলীপবাবু। এহেন দিলীপ ঘোষকে মন্ত্রী করা নিয়ে শুরু হয়েছিল জল্পনা। বিশেষ করে উত্তরপ্রদেশ ও বিহারে বিজেপির রাজ্য সভাপতিরা মন্ত্রিত্ব পেয়েছেন। আপনি কেন পেলেন না? শুক্রবার রাজ্য দফতরে সাংবাদিকদের মজার ছলে দিলীপ বলেন,’আমাকে যোগ্য মনে করা হয়নি’। বিজেপির রাজ্য সভাপতির কথায়,’আমি আগেই বলে দিয়েছি, সংগঠনে কাজ করতে আগ্রহী। মিশন পুরো হয়নি। তৃণমূল ১৯-এ হাফ, ২১-এ সাফ হবে বলেছি। যতদিন না সাফ হয়, ততদিন লক্ষ্যে অবিচল থাকব’।

বিজেপির অন্দরে কান পাতলে অবশ্য অন্য কথা শোনা যাচ্ছে। ২০২১ সালে বিজেপি ক্ষমতায় আসলে দিলীপের মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। সে কারণে কি দিল্লিতে যেতে চাইলেন না বিজেপির রাজ্য সভাপতি? দিলীপের জবাব,’মন্ত্রী, মুখ্যমন্ত্রীর প্রশ্নই নেই। প্রশ্নটা হল পরিবর্তন। সর্বভারতীয় নেতৃত্বের সিদ্ধান্ত মেনে চলি। অনুশাসন রয়েছে আমাদের দলে’।