নিজস্ব প্রতিনিধি, টিডিএন বাংলা, বহরমপুর: তৃণমূল শাসনে রাজ্যে আরএসএস বিজেপির এত উত্থান কেন? সোমবার ভোট প্রচারে এসে সেই প্রশ্নই তুললেন ওয়েল ফেয়ার পার্টি অফ ইন্ডিয়ার সর্বভারতীয় সভাপতি ডঃ কাসেম রসূল ইলিয়াস। জঙ্গিপুর লোকসভার এই প্রার্থী এদিন রঘুনাথগঞ্জের বিভিন্ন গ্রামে ভোট প্রচারে যান। এলাকা ঘুরে সেখানে তিনি এক কর্মীসভা করেন। সভায় তিনি বলেন, এরাজ্যে আরএসএস বিজেপির উত্থান চলছেই। রামনবমীতে প্রকাশ্যে অস্ত্রমিছিল চলছে। তৃণমূলের আমলে রাজ্যে এত আরএসএস এর স্কুল বাড়ছে কেন? সে প্রশ্নও তিনি তোলেন।

তিনি আরও বলেন, তৃণমূলের নেতারা বিজেপিতে চলে যাচ্ছে। আরএসএস এর সাথে তৃণমূলের এত মাখামাখি সম্পর্ক কেন? তার আরও প্রশ্ন আসলে শাসক দল আরএসএস বিজেপিকে হঠানোর নাম করে তাদেরকে আরও উৎসাহ দিচ্ছে। প্রকৃতপক্ষে তৃণমূল চায়না আরএসএস বিজেপি উঠে যাক। উন্নয়ন না করে পঞ্চায়েত নির্বাচনে ব্যাপক সন্ত্রাস, বেকারত্ব ও রাজ্যে আইনশৃঙ্খলার অবনতির জন্য তিনি তৃণমূল সরকারকেই দায়ী করেন।

এদিন ওয়েলফেয়ার পার্টির রোড শোয়ে সাধারণ মানুষের ব্যাপক আগ্রহ লক্ষ করা গেল মুর্শিদাবাদের রঘুনাথগঞ্জে। মাইকের আওয়াজ শুনে প্রার্থীকে দেখতে ঘরের মেয়েরা বেরিয়ে আসেন রাস্তায়। তাদের দিকে হাত নেড়ে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন দলের প্রার্থী ডঃ এসকিইউআর ইলিয়াস। প্রার্থীকে ঘিরে ধরে এলাকার কচিকাঁচারাও। তিনি তাদের পড়াশুনার খোঁজ খবর নেন। ফুলের মালা হাতে গ্রামের মোড়ে মোড়ে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গেছে মানুষদের। প্রিয় প্রার্থীকে পেয়েই তারা গলায় ফুলের মালা পরিয়ে দেন। কেউ কেউ মিষ্টি মুখও করান প্রার্থীকে।

এদিন রঘুনাথগঞ্জের বাগমারা, সন্তোষপুর, গণকর, পাঁচনপাড়া ইত্যাদি গ্রাম সহ প্রায় অর্ধশতাধিক গ্রাম প্রদক্ষিণ করেন দলের প্রার্থী ডঃ এসকিইউআর ইলিয়াস। ওয়েলফেয়ার পার্টির প্রার্থীকে দীর্ঘ বঞ্চনার কথা শোনান কেউ কেউ। কেউ বলেন, আমার বিধবা ভাতাটা আজও হল না। কারও অভিযোগ, আমার ঘর করে দিল না কেউ। শুধুই ভোটের সময় আসলেই ওদের দেখা মেলে। আর কেউ খোঁজ রাখে না ওদের।

এখানকার বঞ্চনার কথা শুনে ক্ষোভ প্রকাশ করে ডঃ এসকিইউআর ইলিয়াস বললেন, এই রাজ্যে কি সরকার আছে? এই কেন্দ্রে বিভিন্ন দল ক্ষমতায় থেকেছেন। মানুষের মৌলিক চাহিদা টুকুও পুরন করতে ব্যর্থ তারা। আজ পর্যন্ত রাস্তার সমস্যাটাই মেটেনি। তবে আশার আলো জঙ্গিপুরের মানুষ এবার পরিবর্তন চাইছেন।