নিজস্ব সংবাদদাতা,টিডিএন বাংলা, কলকাতা : নতুন সরকার গঠন করার আবার ব্রিগেডে সভা করার ঘোষণা দিলেন তৃণমূল নেত্রী। শনিবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘নতুন সরকার হবেই হবে। সেদিন মা মাটি মানুষকে ধন্যবাদ জানাতে ফের ব্রিগেড সমাবেশ হবে। ‘বিজেপি যেখানে সভা করবে সেখানে পাল্টা সভা করে দেশের বিভিন্ন রাজ্যে জবাব দিতে বলেন মমতা। তাঁর অভিযোগ, ‘জরুরি অবস্থার চেয়েও ভয়ঙ্কর দিন চলছে। এই রকম হিটলার মুসোলিনি সরকার আগে কোনও দিন ভারত দেখেনি। ‘তিনি এদিন বলেন, ‘বাংলার মাটি স্বাধীনতা আন্দোলনের পথ দেখিয়েছে। ব্যাংক ধুঁকছে, বাজারে আগুন লেগেছে। মোদি সরকারের মেয়াদ শেষ। আগামী দিনে নতুন সরকার আসছে। জাগুন সবাই জাগুন। পকেটে নেই চাকরি আবার সংরক্ষণ করছে। চারিদিকে ধ্বস শুধু বিজেপি বস। বিজেপির সরকারের সমালোচনা করে মমতা বলেন, ‘বলেছিলে বছরে দুই কোটি চাকরি দেব, কিন্তু এখন বছরে দুই কোটি বেকার হচ্ছে। আসামে এনআরসি করে যা ইচ্ছে করছে।’

তাঁর মন্তব্য, ‘যে যেখানে শক্তিশালী সে সেখানে লড়ুন। কে প্রধানমন্ত্রী হবে ভোটের পর বসে ঠিক করবো। যুগের প্রয়োজনে এই জোট। এই জোটে সবাই নেতা। দিল্লিতে কেজরিওয়াল সভা করুন আমরা যাবো। কাশ্মীরে ফারুক আব্দুল্লাহ সভা করুন, ডাকলে যাবো।

মমতা বলেন, সমস্ত প্রতিষ্ঠানকে নষ্ট করেছে এই সরকার। সিবিআই কে কলঙ্কিত করছে মোদি সরকার। ইডি আরবিআই এর নাম খারাপ করেছে। এদিন মমতা বিজেপির রথ নিয়েও কটাক্ষ করেন। ‘তৃণমূল নেত্রী বলেন,’আসামে জিরো হবে। অরুণাচল,মিজোরামে আসন পাবেনা। অনেক হয়েছে অচ্ছে দিন বিজেপিকে বিদায় দিন। দেশকে এক রাখতে বিজেপিকে বাদ দিন’।

এদিন ব্রিগেডকে সফল করার জন্য তিনি প্রশাসন, তৃণমূল কর্মীদের ধন্যবাদ জানান।