কিবরিয়া আনসারী, টিডিএন বাংলা, ডোমকল: প্লাস্টিকজাত বর্জ্য পদার্থ থেকে পেট্রোল তৈরী করে নজীর গড়লেন ফাইজুল ইসলাম। মুর্শিদাবাদ জেলার জলঙ্গী ব্লকের উত্তর ঘোষপাড়ার বাসিন্দা সে। বছর পঁয়ত্রিশের ফাইজুল পেশায় লেদ দোকানের মালিক। ছোট বেলা থেকেই সংসারের হাল ধরতে হয়েছে তাকে। তাই স্কুলে পড়াশুনাও তেমন ভাবে করা হয়নি তার। কিন্তু মেধাবী এই যুবকের এমন বিস্ময়কর আবিষ্কারে এলাকায় সাড়া ফেলেছে ফাইজুল।

জানা গিয়েছে, প্রতিদিনের ব্যবহৃত প্লাস্টিক ও পলিথিন জাত ক্যারি ব্যাগ থেকে শুরু করে কৌটো, থালা, গ্লাস, বস্তা প্রভৃতি সামগ্রী একের পর এক জমা হচ্ছে যা মাটির নিচে এবং পরিবেশ কে দূষিত করছে। প্লাস্টিক বর্জ্য পদার্থ যে ভাবে পরিবেশকে দুষিত করছে যার ফলে পরিবেশের ভারসাম্য দিনের পর দিন ক্ষতি গ্রস্ত হচ্ছে।

ফাইজুলের বন্ধু মহম্মদ মান্নান জানান, নিম্নবর্গের একটি লেদ এর দোকান খুলে লোহার জিনিস তৈরির কাজ করে ওর সংসার চলে। অব্যবহৃত গ্যাস সিলিন্ডারে প্লাস্টিক জাতীয় দ্রব্যকে আগুন দিয়ে জ্বালিয়ে সে পেট্রোল তৈরী করছে। সেই প্রেট্রোলে মোটর বাইক, জল তোলা পাম্প সব কিছুই চলছে৷ উন্নত যন্ত্রাংশ ও সরকারি সাহায্য পেলে হইতো আরও ভালো কিছু করতে পারবে ফাইজুল।

টিডিএন বাংলাকে ফাইজুল ইসলাম বলেন, নেট থেকে দেখে নিজের উদ্যোগে দোকানের ছোটো ছোটো যন্ত্রাংশ, পুরানো খালি গ্যাস সিলিণ্ডার নিয়ে পেট্রোল উৎপাদনের মেসিন তৈরি করি। এতে ১ লিটার পেট্রোল উৎপাদন করতে খরচ মাত্র ২০ টাকা।কিন্তু যেখানে বর্তমানে ১ লিটার পেট্রোল এর মূল্য প্রায় ৭৫ টাকা। এতো অল্প খরচে উৎপাদিত পেট্রোল যা মোটরসাইকেল চালাতেও সক্ষম।

স্থানীয় বাসিন্দা হাসিবুল ইসলাম জানান, এই বর্জ্য পদার্থ পচনশীল নয়। তাই পরিবেশকে দূষণ মুক্ত করবে। অন্য দিকে আকাশ ছোঁয়া পেট্রোলের দাম। পেট্রোলের ঘাড়তি মেটাতে এক পরিবেশ বান্ধব এই আবিষ্কার সত্যিই বিস্ময়কর।