নিজস্ব প্রতিনিধি, টিডিএন বাংলা, কলকাতা : শান্তি এবং সম্প্রতি রক্ষার জন্য এই প্রথম কোন পরিব্রাজক মায়ানমার সীমান্ত থেকে বুদ্ধগয়া হাঁটলেন। বিশ্ব শান্তি এবং ধর্ম রক্ষার জন্য ৩০০০ কিলোমিটার পায়ে হেঁটে বুদ্ধ গয়ায় যাত্রা করছেন ভিক্ষু শরণাঙ্কর থের।

গত ২৬শে জানুয়ারী বাংলাদেশের মায়ানমার সীমান্তের রাগুনীয়া থেকে উখিয়া হয়ে তিনি বুদ্ধ গয়ার উদ্দেশ্যে রওনা হন। ৮ই মার্চ ভারতের বেনাপোল বর্ডার অতিক্রম করেন এবং জাতীয় সড়ক ধরে বুদ্ধ গয়ার দিকে এগিয়ে যান। প্রতিদিন ৪০ থেকে ৪৫ কিলোমিটার হেঁটে গন্তব্যের দিকে এগিয়ে যান এই ভিক্ষু। ১৩ই মার্চ তিনি পৌঁছন ডানকুনি। সেখান থেকে দুর্গাপুর এক্সপ্রেসওয়ের দিয়ে এগিয়ে চলেন।

রবিবার রাত ৯টার দিকে তিনি অনুগামী সহ বুদ্ধগয়া পোঁছুবেন। ৭দিন ওখানে অবস্থান করে তিনি যাবেন আজমীর শরিফ। সেখান থেকে ফের যাবেন বৃন্দাবন। পশ্চিমবঙ্গ থেকে এই পদযাত্রায় অংশগ্রহণ করেন বুদ্ধ মহামিলন সংঘের অন্যতম সদস্য শিক্ষক পরিমল মল্লিক। এই দীর্ঘ যাত্রায় সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেন কর্নেল সিদ্ধার্থ বার্ভে। ঝাড়খণ্ড সরকার এবং বিহার সরকারও এই পরিব্রাজক দলকে বিশ্রামের ব্যবস্থা করেন।