নিজস্ব সংবাদদাতা, টিডিএন বাংলা, কলকাতা: যোগীর পদত্যাগ চেয়ে শহরে মিছিল বের করে মানবাধিকার সংগঠন এপিডিআর। অন্যদিকে রূপান্তরকামী সহ মহিলাদের একটা অংশ শহীদ মিনারে স্লোগান দেন এনআরসির বিরুদ্ধে।
শুক্রবার কলেজ স্ট্রিট থেকে মিছিল বের করে এপিডিআর। ওই সংগঠনের রাজ্য সহসভাপতি রঞ্জিত শূর জানান,
উত্তরপ্রদেশে মানুষের উপর ভয়াবহ রাস্ট্রীয় সন্ত্রাস চলছে। মুখ্যমন্ত্রীর পদ থেকে আমরা যোগী আদিত্যনাথের পদত্যাগ দাবি করছি। ইউপি-দিল্লি-আসাম-জামিয়া-আলিগড় সহ বিভিন্ন জায়গায় সিএএ, এনআরসি বিরোধী আন্দোলনে রাস্ট্রীয় সন্ত্রাস হয়েছে। আমরা এর প্রতিবাদে পথে নেমেছি।

তিনি আরও বলেন, শাসক ভয় পেয়েছে। মানুষের মুখোমুখি হতেই ভয়। তাই অন লাইন নাগরিকত্বের কথা বলছে। এনপিআর না করতে পারলে সিএএ, এনআরসি কিছুই করতে পারবে না। তাই আন্দোলনকে দমন করতে চাইছে। কিন্তু এই আন্দোলনে জনগণের জয় হবে। যেভাবে সারা দেশে মানুষ পথে নেমেছে তাতে নতুন ভারতকে আমরা দেখতে পাচ্ছি।
ইয়ংবেঙ্গল তথা নাগরিক পঞ্জী বিরোধী যুক্তমঞ্চের নেতা প্রসেনজিৎ বসু বলেন,
বিজেপি শা‌সিত উত্তরপ্র‌দেশ সহ বিভিন্ন রা‌জ্যে এনআর‌সি-এন‌পিআর-নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন ২০১৯ বিরোধী আন্দোল‌নের উপর রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাস‌কে ধিক্কার জানাতেই পথে নেমেছি।
এদিন জামিয়া, সাহীনবাগ সহ বিভিন্ন জায়গায় যে আন্দোলন চলছে তাকে সমর্থন জানানো হয়।
এদিকে বৃষ্টি মাথায় করে সিএএ, এনআরসির বিরুদ্ধে পথে নামেন রূপান্তরকামী নারীরাও। শহীদ মিনারে জড়ো হন সাধারণ মহিলারাও। নারীরা বলছেন, এনআরসি হলে সবচেয়ে সমস্যায় পড়তে হবে তাদের। কেননা, তাদের নথি নেই বা বিয়ের আগে পরে নানা পরিবর্তন হয়। তাছাড়া বহু মহিলা বাড়ি থেকে দূরে। কিভাবে তারা বাবা মায়ের জন্ম স্থান, জন্ম তারিখ দেবে। কাগজ কোথায়? অসমের ঘটনা প্রমাণ করেছে, এনআরসি নারী বিরোধীও। তাই আমরা এর বিরুদ্ধে।