টিডিএন বাংলা ডেস্ক: ভারত বিশ্বের বৃহত্তম গনতান্ত্রিক দেশ তাই পাকিস্তান, চিন কিংবা বার্মার কাছ থেকে গনতন্ত্রের বিষয়ে কোনো কিছু শেখার প্রয়োজন নেই, শনিবার পশ্চিম ত্রিপুরা জেলা ও দায়রা জজ আদালতের নতুন ভবনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্যে দেওয়ার সময় এমনটাই বললেন ত্রিপুরার মুখ‍্যমন্ত্রী বিল্পব দেব। এদিন তিনি ২০১৫ সালের “অ্যাওয়ার্ড ওয়াপসি” বিক্ষোভের রেফারেন্স টেনে নিয়ে বলেন, যারা দেশে বাকস্বাধীনতার অভাব সম্পর্কে অভিযোগ করে চলেছেন তারা তাদের দাবিতে কোন সত্যতা থাকলে তাদের বক্তব্য বলতে পারছেন না কেন?

উল্লেখ্য, ২০১৫ সালে অ্যাওয়ার্ড ওয়াপসি প্রোগ্ৰামে একদল লোক বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেছিলেন এবং তারা তাদের পুরস্কার ফিরিয়ে দিয়েছিলেন। কারণ হিসেবে তারা বলেছিলেন, দেশের মধ্যে নিজস্ব বাকস্বাধীনতা নেই। এবং জেশে আইন শৃঙ্খলা ভঙ্গের জন্য প্রধানমন্ত্রী, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে দোষ দিয়েছিলেন। সেই পরিপেক্ষিতে এদিন বিল্পব বিক্ষোভকারীদের“ বিদেশি এজেন্ট ” আখ‍্যা দিয়ে বলেন, দেশে যদি আইন-শৃঙ্খলা ও বাকস্বাধীনতা না থাকে তবে তারা কিভাবে সেই কথা কী বলেছিল? এছাড়াও তিনি বলেন, ভারত বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী গণতন্ত্রের দেশ তাই এ বাকস্বাধীনতা সম্পর্কে পাকিস্তান, চীন বা বার্মার মতো দেশগুলির কাছ থেকে কোনও পাঠ নেওয়ার প্রয়োজন নেই।

সংসদে হামলার দায়ে সাজাপ্রাপ্ত আফজাল গুরু সুপ্রিম কোর্টে তার বিচারের মামলায় লড়াই করার জন্যও আইনজীবী পেয়েছিলেন। সেই প্রসঙ্গ টেনেও বিল্পব বলেন, দেশের সর্বাধিক ভয়াবহ কাজ করা সন্ত্রাসী অভিযুক্তকেও তার পক্ষ হয়ে লড়াই করার স্বাধীনতা দেওয়া হয়েছিল। এ থেকেই প্রমাণ করে যে ভারত বিশ্বের সবচেয়ে বৃহত্তম গণতন্ত্র।

তিনি আরও বলেন, বিচার বিভাগের কোনও সদস্য বা তাঁর তদারকিতে ভারতীয় গণতন্ত্রের কোনও স্তম্ভের উপর কোনও প্রভাব দেওয়া হবে না।

সূত্র- ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস